raising sylhet
ঢাকাশনিবার , ১০ জুন ২০২৩
  1. অর্থনীতি
  2. আদালত
  3. আন্তর্জাতিক
  4. আরো
  5. খেলার খবর
  6. গণমাধ্যম
  7. চাকরির খবর
  8. জাতীয়
  9. দেশের খবর
  10. ধর্ম পাতা
  11. পরিবেশ
  12. প্রবাস
  13. প্রেস বিজ্ঞপ্তি
  14. বিজ্ঞান প্রযুক্তি
  15. বিনোদন
আজকের সর্বশেষ সবখবর

ওসির সেই নির্দেশকে বৃদ্ধাঙ্গলি দেখিয়ে এক্ষেত্রে সবাইকে ছাড়িয়ে গেছেন সিলেট জেলা ডিবির পরিদর্শক রেফায়েত উল্লাহ!

rising sylhet
rising sylhet
জুন ১০, ২০২৩ ৫:৩৫ অপরাহ্ণ
Link Copied!

ওসির সেই নির্দেশকে বৃদ্ধাঙ্গলি দেখিয়ে এক্ষেত্রে সবাইকে ছাড়িয়ে গেছেন সিলেট জেলা ডিবির পরিদর্শক রেফায়েত উল্লাহ!

সিলেট জেলার বিভিন্ন সীমান্ত দিয়ে চোরাচালানের মাধ্যমে পণ্য নিয়ে আসাকে স্থানীয় ভাষায় ভোঙ্গা বলা হয়। ভোঙ্গাড়ীদের কাছ থেকে নিয়মিত বখরা আদায় করছেন এই তিন থানা পুলিশের লাইনম্যান। যদিও বর্তমানে গোয়াইনঘাট থানার সীমান্তের সব রকম চোরাচালান বন্ধ করে দিয়েছেন ওসি নজরুল ইসলাম। কিন্তু ওসির সেই নির্দেশকে বৃদ্ধাঙ্গলি দেখিয়ে এক্ষেত্রে সবাইকে ছাড়িয়ে গেছেন সিলেট জেলা ডিবির পরিদর্শক রেফায়েত উল্লাহ।

জানাযায়,সিলেট জেলা ডিবির পরিদর্শক রেফায়েত উল্লাহ নিজে দাড়িয়ে থেকে সীমান্তের ওপার থেকে চোরাচালানের পণ্য নিয়ে আসতে বলেন চোরাকারবারিদের। তিনি এক সাথেই এই তিন থানা এলাকার সীমান্তের চোরাকারবারিদের নিয়ন্ত্রণ নিয়ে নিয়েছেন নিজের হাতে। তার নিজস্ব নিয়োগকৃত লাইনম্যান কামাল আহমদের মাধ্যমে তিনি প্রতিদিন এই তিন উপজেলা সীমান্ত থেকে প্রায় লাখ টাকা বখরা আদায় করেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। কামাল দীর্ঘদিন থেকে জেলা ডিবির লাইনম্যান পরিচয় দিয়ে ভোঙ্গাড়ীদের কাছ থেকে বিভিন্ন হারে বখরা আদায় করে থাকে। সম্প্রতি কামাল আহমদ ওসি রেফায়েত উল্লাহর শেল্টারে আরো ব্যাপরোয়া হয়ে উঠেছেন। এই কামালে বাড়ি গোয়াইনঘাট উপজেলার ১১ নং মধ্যে জাফলং ইউপির খাফাউরা গ্রামে, সে ঐ গ্রামের মৃত সরকুম আলী ছেলে। সরেজমিনে জানা যায়, কামাল আহমদ ডিবির হয়ে প্রতিমাসে এই তিনটি থানার চোরাচালান থেকে ওসি রেফায়েত উল্লাহর হাতে তুলে দেন প্রায় ২৫ লক্ষ টাকা। সেই টাকার অর্ধেক নেন কামাল নিজে এবং বাকি অর্ধেকও ওসি রেফায়েত উল্লাহ। সম্প্রতি প্রতিটি ভোঙ্গার গাড়ি থেকে ডিবির ওসি রেফায়েত উল্লাহর নামে ২৫শত টাকা করে আদায় করেন কামাল। এ থেকে ওসি ১২ শত টাকা নেন গাড়ি প্রতি আর কামাল নেন ১৩ শত টাকা। স্থানীয় থানার ওসিদের থেমন একটা পাত্তা দেননা ওসি রেফায়েত উল্লাহ। তিনি কামালকে নিয়ে রাতে নিজেই রাস্তায় নেমে পড়েন। গাড়ি আটক করেই থানায় নেওয়ার ভয়, মামলার হুমকি দিয়ে প্রতিটি গাড়ি থেকে ২০ থেকে ৩০ হাজার টাকাও আদায় করেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। সম্প্রতি গোয়াইনঘাট উপজেলার আত্তিপাড়া রাস্তা মোড়ে দাড়িয়ে বাংলাদেশের খাসিয়া পুঞ্জি থেকে নিয়ে আসা পানের গাড়ি আটক করে ১লক্ষ ৩০ হাজার টাকা বখরা আদায় করেন। গত বুধবার আত্তিপাড়া থেকে একটি পিয়াজের গাড়ির আটক করে ৩০ হাজার টাকা বখরা আদায় করে কামাল আহমদ সাথে ছিলেন ওসি রেফায়েত উল্লাহ।

৪৩ বার পড়া হয়েছে।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।