raising sylhet
ঢাকারবিবার , ১৬ জুন ২০২৪
  • অন্যান্য
  1. অর্থনীতি
  2. আদালত
  3. আন্তর্জাতিক
  4. আরো
  5. খেলার খবর
  6. গণমাধ্যম
  7. চাকরির খবর
  8. জাতীয়
  9. দেশের খবর
  10. ধর্ম পাতা
  11. পরিবেশ
  12. প্রবাস
  13. প্রেস বিজ্ঞপ্তি
  14. বিজ্ঞান প্রযুক্তি
  15. বিনোদন
আজকের সর্বশেষ সবখবর

কীভাবে সাজবেন এটাই তো ভাবছেন, জেনে নিন

rising sylhet
rising sylhet
জুন ১৬, ২০২৪ ১১:৩১ অপরাহ্ণ
Link Copied!

ঈদে কীভাবে সাজবেন এটাই তো ভাবছেন, জেনে নিন: সারাদিনের ক্লান্তি দূর করতে চা বা কফি খেয়ে বেশ কিছুটা সময় হাতে রেখে সাজের প্রস্তুতি নিন।

ঈদের রাতে বাইরে যাওয়ার জন্য বিশেষ পোশাকটি আগেই তৈরি রাখুন। আর সেই সঙ্গে সাজ-সরঞ্জামও গুছিয়ে নিন।

সুগন্ধি -পছন্দের সুগন্ধি ব্যবহার করে আপনার বিশেষ দিনের সাজ পূর্ণ করুন।

দুধ, মধু ও ময়দার মিশ্রণ দিয়ে ত্বক পরিষ্কার করে নিন। এরপর ময়েশ্চারাইজার লাগিয়ে পাঁচ মিনিট অপেক্ষা করুন।

ত্বকের রঙের সঙ্গে মিলিয়ে ফাউন্ডেশন মুখে ও গলায় লাগিয়ে একটা ভেজা স্পঞ্জ দিয়ে ভালোভাবে মিশিয়ে নিন। ফাউন্ডেশন দেওয়ার পরও মুখে যদি ভাঁজ বা দাগ থাকে তাহলে কনসিলার ব্যবহার করুন। এবার কমপ্যাক্ট পাউডার দিন।

চোখ -ফাউন্ডেশন লাগানোর সময় চোখের ওপর ও নিচে ভালো করে মিলিয়ে দিন। চোখের তলায় কালি থাকলে কনসিলার দিয়ে নিন। আর যদি ফেস পাউডার ব্যবহার করেন তাহলে ব্রাশ দিয়ে পাউডার ভালো ভাবে ঝেড়ে নিন। এরপর চোখের ওপর সারা পাতাজুড়ে বেস আইশ্যাডো লাগান।

পোশাকের সঙ্গে মিলিয়ে বা দুই বা তিনটি শেডের আইশ্যাডো লাগিয়ে নিন। ভ্রুর ঠিক নিচে হাইলাইটার লাগান। কাজল শুধু চোখের ভেতর লাগান, ওপরে ও নিচে আইলাইনার লাগান। যারা আইলাইনার ব্যবহার করতে চান না, তারা একটু গাঢ় করে কাজল লাগাতে পারেন।

স্মোকি লুকের জন্য হালকা গাঢ় বাদামি বা কালো আইলাইনার ব্যবহার করুন। সঙ্গে সোনালি বা ব্রঞ্জ ও কপার আইশ্যাডো দিন। আইল্যাশের কাছে সাদা পার্ল শিমার লাগান। সবশেষে ২-৩ কোটে মাশকারা লাগান।

ঠোঁট – লিপস্টিক লাগানোর সময় প্রথমে ঠোঁটে একটু পাউডার লাগিয়ে নিলে ভালো হয়। তারপর লিপ পেন্সিল দিয়ে হালকা করে আউট লাইন এঁকে নিন। তারপর ঠোঁটের মাঝখানে লিপ ব্রাশ দিয়ে লিপস্টিক লাগিয়ে নিতে পারেন অথবা সরাসরি লিপস্টিক দিয়েও ভরে দিতে পারেন। রাতের সাজে একটু গাঢ় রঙের লিপস্টিক ব্যবহার করতে পারেন।

তবে আজকাল লিপগ্লসের ব্যবহার বেশি হচ্ছে। লিপস্টিকের পরিবর্তে গাঢ় রঙের লিপগ্লসও লাগাতে পারেন।

নাক – নাক একটু ছোট ও মোটা হলে দু’পাশে ডার্ক শেডের ফাউন্ডেশন লাগিয়ে নিন। এতে করে নাক শার্প দেখাবে। নাকের ওপরের অংশে লাইট শেডের ফাউন্ডেশন এবং কম্প্যাক্ট লাগিয়ে নিন।

ব্লাশন -গোলাপি, বাদামি শেডের ব্লাশন ব্রাশে নিয়ে নিন। একটু হেসে নিয়ে আপনার গালের আপেল পয়েন্ট সিলেক্ট করুন এবং চিক বোন এ ব্লাশন লাগান।

গহনা -পোশাক এবং সাজের সঙ্গে মিলিয়ে কানে গলায় ও হাতে পছন্দমতো সোনা, রূপা, মুক্তা বা হীরার গহনা পরুন।

চুলের সাজ -চুলের সাজের সময় আপনার মুখের গড়নের কথাও মাথায় রাখুন। যাদের মুখ গোল, তারা কপালের দিকটা কম ফোলান। লম্বাটে চেহারা যাদের, তারা পেছনের দিকটা ফুলিয়ে নিতে পারেন। চাপা মুখের যারা, তারা দুই পাশেই হালকা করে চুল ফুলিয়ে চুল সেট করে নিন।

তবে চেহারার আকৃতি যেমনই হোক, চুল একপাশ থেকে ছেড়ে দিলে আপনাকে সুন্দর দেখাবে। পনিটেলও করতে পারেন। অনেকে কোঁকড়া চুল পছন্দ করেন। তারা চুল কোঁকড়া করে ছেড়ে দিতে পারেন।

৫১ বার পড়া হয়েছে।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।