ছাত্রলীগের বর্বরোচিত হামলার ঘটনায় জেলা ও মহানগর ছাত্রদলের সাবেক নেতৃবৃন্দের নিন্দা

মে ২৫ ২০২২, ২০:৫২

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রদল ও সিলেট জেলা ছাত্রদলের শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতে ছাত্রলীগের বর্বরোচিত হামলার ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন সিলেট জেলা ও মহানগর ছাত্রদলের সাবেক নেতৃবৃন্দ।

বুধবার (২৫ মে) এক বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ বলেন, “বর্তমান সরকার ও তাদের পেটোয়া বাহিনী দ্বারা কেউ নিরাপদ নয়। মানুষের জান-মালের নিরাপত্তা এখন পুরোপুরি অনিশ্চিত। দেশজুড়েই চলছে সরকারদলীয় সন্ত্রাসীদের তান্ডব। বিরোধী দলসহ ভিন্নমতের মানুষদের কন্ঠরোধ করার জন্য সারাদেশে এরা গড়ে তুলেছে রক্তাক্ত সন্ত্রাসী পরিকাঠামো। এদের দ্বারা জনপদের পর জনপদে রক্ত ঝরছে, অত্যাচারিত হচ্ছে বিরোধী পক্ষের মানুষসহ সাধারণ জনগণ। জনগণের সমর্থন ছাড়া ক্ষমতায় থাকার জন্যই দেশে বিরাজ করছে এক ভীতির পরিবেশ। গত ২৩ মে ২০২২ সিলেট জেলা ছাত্রদলের বিক্ষোভ মিছিলে ও গতকাল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ সারাদেশে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের শান্তিপূর্ণ মিছিলে ছাত্রলীগের সন্ত্রাসী হামলা এবং নেতাকর্মীদেরকে আহত করার ঘটনা সেই ভীতিকর পরিবেশেরই আরেকটি ঘৃণ্য দৃষ্টান্ত। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রদলের নারী নেত্রীদের ওপর ছাত্রলীগের পাশবিক হামলা ন্যাক্কারজনক, বর্বরোচিত ও নজীরবিহীন।

অবৈধ আওয়ামী লীগ সরকার গণতান্ত্রিক প্রতিষ্ঠানগুলোকে ধ্বংস করেছে, অবৈধ শাসনকে প্রলম্বিত করার জন্য। জবাবদিহিতা অদৃশ্য করেছে লুটপাটের রাজত্বকে নিষ্কন্টক করার জন্য। অনাচার-অবিচারের এক মধ্যযুগীয় বর্বর শাসনের মধ্যে দেশের জনগণ রুদ্ধশ্বাস অবস্থায় দিনাতিপাত করছে। এক ভীতিকর নৈরাজ্যের অন্ধকারে ডুবে গেছে দেশ। সরকারের অন্যায়ের বোঝা এতো বেশী হয়েছে যে, এর ভারেই সরকারের পতন অত্যাসন্ন। জনগণ আর বসে থাকবে না, গণআন্দোলনে ভেসে যাবে অবৈধ শাসকগোষ্ঠী।

গতকাল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ সারাদেশে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের শান্তিপূর্ণ মিছিলে ছাত্রলীগের সন্ত্রাসী হামলা এবং নেতাকর্মীদেরকে আহত করার ঘটনায় আমরা অবিলম্বে সন্ত্রাসীদের গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির জোর দাবি জানাচ্ছি। আহত নেতাকর্মীদের আশু সুস্থতা কামনা করছি।”

নেতৃবৃন্দ বলেন, “জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দল-ময়মনসিংহ দক্ষিণের গফরগাঁও পৌর শাখার আহবায়ক মাহবুবুল ইসলাম ইমন এর ওপর আওয়ামী লীগ-যুবলীগ-ছাত্রলীগের সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা হামলা চালিয়ে দুই পা ভেঙ্গে দেয়ার ঘটনা বর্তমান ভোটারবিহীন সরকারের আমলে আরও একটি ঘৃন্য দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে। বিএনপি এবং এর অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনসহ বিরোধী নেতাকর্মীদের ওপর সরকারদলীয় সন্ত্রাসীরা দেশব্যাপী যে বর্বরোচিত ও ন্যাক্কারজনক জুলুম-নির্যাতন চালাচ্ছে, এটি তারই ধারাবাহিকতা। গণতন্ত্রকে বিলীন করে আইনকে হাতের মুঠোয় নিয়ে সরকারী দলের সন্ত্রাসীরা যেমন সমগ্র দেশে নিজেদের আধিপত্য বজায় রাখতে বেপরোয়া হয়ে উঠেছে, একইভাবে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীও বর্তমান সরকারের দোসর হিসেবে বিরোধী নেতাকর্মীদের ওপর হামলা, নির্যাতন ও গ্রেফতারে মাতোয়ারা হয়ে উঠেছে। বর্তমানে আওয়ামী ফ্যাসিবাদ আরও ভয়ঙ্কর রুপে আত্মপ্রকাশ করেছে। দেশটা এখন মগের মুল্লুকে পরিণত হয়েছে, যেখানে আইন-কানুন, সুষ্ঠু বিচার কিছুই নেই। সরকার নিজেদের ব্যর্থ চেহারা ঢাকতেই বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলোর ওপর সহিংস হামলার পুনরাবৃত্তি ঘটাচ্ছে। যেহেতু সরকারের জনসমর্থন নেই, তাই ক্ষমতায় টিকে থাকতে ফ্যাসিবাদী নীতি অবলম্বন করে নিজেদের কর্তৃত্ববাদী শাসন জারী রেখেছে। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকলে দেশ থেকে সুশাসন নিরুদ্দেশ হয়ে যায়।

সরকারদলীয় সন্ত্রাসীদের দ্বারা মাহবুবুল ইসলাম ইমন এর ওপর বর্বরোচিত ও ন্যাক্কারজনক হামলা ও তার দুই পা ভেঙ্গে দেয়ার নিষ্ঠুর ঘটনায় আমরা তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি এবং অবিলম্বে সন্ত্রাসীদের গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির জোর দাবি করছি। গুরুতর আহত মাহবুবুল ইসলাম ইমন এর আশু সুস্থতা কামনা করছি।”

সিলেট জেলা ও মহানগর ছাত্রদলের নেতৃবৃন্দের মধ্যে বিবৃতি প্রদান করেন সিলেট মহানগর ছাত্রদলের সাবেক যুগ্ম সম্পাদক, সিলেট জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের যুগ্ম আহবায়ক মোবিনুল হক চৌধুরী রাহি, সাবেক ছাত্রদল নেতা, সিলেট মহানগর বিএনপির সাবেক সহ মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক সম্পাদক, সিলেট মহানগরীর ২১ নং ওয়ার্ড বিএনপির আহবায়ক কমিটির সদস্য, মোস্তফা কামাল ফরহাদ, সাবেক ছাত্রদল নেতা, সিলেট মহানগরীর ৫নং ওয়ার্ড বিএনপির সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক, সিলেট মহানগর যুবদলের আহবায়ক কমিটির সদস্য আব্দুল্লাহ শফি সাঈদ শাহেদ, সিলেট জেলা ছাত্রদলের সাবেক যুগ্ম সম্পাদক, সিলেট জেলা যুবদলের আহবায়ক কমিটির সদস্য মিজানুর রহমান নেছার, সিলেট জেলা ছাত্রদলের সাবেক যুগ্ম সম্পাদক, সিলেট মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলের যুগ্ম আহবায়ক আফসর খান, সিলেট মহানগর ছাত্রদলের সাবেক যুগ্ম সম্পাদক, সিলেট মহানগর যুবদলের আহবায়ক কমিটির সদস্য উমেদুর রহমান উমেদ, সিলেট মহানগর ছাত্রদলের সাবেক যুগ্ম সম্পাদক, সাবেক ছাত্রদল নেতা, সিলেট মহানগর যুবদলের আহবায়ক কমিটির সদস্য কল্লোল জ্যােতি বিশ্বাস জয়, সিলেট জেলা ছাত্রদলের সাবেক যুগ্ম সম্পাদক, সিলেট মহানগর যুবদলের আহবায়ক কমিটির সদস্য এম এ মতিন, সিলেট মহানগর ছাত্রদলের সাবেক যুগ্ম সম্পাদক, সিলেট মহানগর যুবদলের আহবায়ক কমিটির সদস্য মির্জা সম্রাট, সিলেট মহানগর ছাত্রদলের সাবেক যুগ্ম সম্পাদক, সিলেট জেলা যুবদলের আহবায়ক কমিটির সদস্য মোজাহিদুল ইসলাম জাহাঙ্গীর, সিলেট মহানগর ছাত্রদলের সাবেক যুগ্ম সম্পাদক, সিলেট জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের যুগ্ম আহবায়ক আব্দুল্লাহ আল মামুন পারভেজ, সিলেট জেলা ছাত্রদলের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক এখলাছুর রহমান মুন্না, সিলেট জেলা ছাত্রদলের সাবেক যুগ্ম সম্পাদক, সিলেট জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের যুগ্ম আহবায়ক ইমাম উদ্দিন, সাবেক ছাত্রদল নেতা, সিলেট জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের যুগ্ম আহবায়ক আব্দুর রউফ, সিলেট মহানগর ছাত্রদলের সাবেক যুগ্ম সম্পাদক, সিলেট মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলের যুগ্ম আহবায়ক আবু সালেহ মো. তাহের , সিলেট জেলা ছাত্রদলের সাবেক যুগ্ম সম্পাদক সুচিত্র চৌধুরী বাবলু, সিলেট জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের যুগ্ম আহবায়ক মোঃ রুনু আহমেদ, সাবেক ছাত্রদল নেতা, সিলেট জেলা যুবদলের আহবায়ক কমিটির সদস্য জিএম বাপ্পি, সাবেক ছাত্রদল নেতা, সিলেট মহানগরীর ২৫নং ওয়ার্ড বিএনপির আহবায়ক কমিটির সদস্য মশিউর রহমান চঞ্চল, সিলেট মহানগর ছাত্রদলের সাবেক সহ সাধারণ সম্পাদক, সিলেট মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলের আহবায়ক কমিটির সদস্য ফাহিম আহমেদ চৌধুরী, সাবেক ছাত্রদল নেতা, সিলেট জেলা যুবদলের আহবায়ক কমিটির সদস্য রায়হান আহমেদ, সিলেট মহানগর ছাত্রদলের সাবেক যুগ্ম সম্পাদক আসাদুল হক আসাদ, সিলেট জেলা ছাত্রদলের সাবেক যুগ্ম সম্পাদক খন্দকার ফয়েজ আহমেদ, সাবেক ছাত্রদল নেতা, সিলেট জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের আহবায়ক কমিটির সদস্য ফাহিম আহমেদ খান, সাবেক ছাত্রদল নেতা, সিলেট মহানগর যুবদলের আহবায়ক কমিটির সদস্য জয়নুল ইসলাম, সাবেক ছাত্রদল নেতা, সিলেট মহানগর যুবদলের আহবায়ক কমিটির সদস্য ইসহাক আহমেদ, আমিন ইসলাম, এস এম পলাশ, সাবেক ছাত্রদল নেতা, সিলেট মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলের সদস্য, বদরুল ইসলাম, সিলেট জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের আহবায়ক কমিটির সদস্য সৈয়দ আমির আলী, সিলেট মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলের আহবায়ক কমিটির সদস্য চমক দে পল্লু, সাবেক ছাত্রদল নেতা, সিলেট মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলের আহবায়ক কমিটির সদস্য মেহেদী হাসান সপু, সাবেক ছাত্রদল নেতা, সিলেট মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলের আহবায়ক কমিটির সদস্য আবির হাসান মুহিন, সাবেক ছাত্রদল নেতা, বিশ্বনাথ উপজেলা যুবদলের আহবায়ক ভারপ্রাপ্ত আহবায়ক সামসুল ইসলাম, সাবেক ছাত্রদল নেতা আব্দুল মতিন, করুণাময় সিংহ, সিলেট জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের আহবায়ক কমিটির সদস্য জাকির হোসেন কয়েছ, হাবিবুর রহমান হাবিব, সিলেট জেলা ছাত্রদলের সাবেক যুগ্ম সম্পাদক সায়াদ হোসেন সুজন, মন্টু কুমার নাথ, মান্না দে, আনিসুজ্জামান লাভলু, সাহেদ আহমেদ, সৈয়দ আমির, রাহেল আহমেদ, এম এ সালাম, আব্দুল ওয়াহিদ ডায়মন্ড, সৈয়দ সাব্বির, দিলাজ আহমেদ, খালেদ আহমদ হোসাইন, হাবিবুর রহমান জুয়েল, বাবুল আহমদ, সাঈদ মাহমুদ ওদুদ, গোলজার আহমদ, হেলাল আহমেদ, মলয় লাল ধর, নরুল ইসলাম নুরুল, পারভেজ খান জুয়েল, শামিম রেজা, জাবেদ আহমেদ, আরজু, বাবলু আহমেদ, খোকন আহমেদ, জাকির আহমেদ, মিজান আহমেদ, বদরুল ইসলাম, লিটন আহমেদ, মোঃ বশির উদ্দিন আহমেদ, মনজ দেব, কয়ছর আহমেদ, কয়সার আহমেদ রানা, জুমন আহমেদ, শফিক আহমেদ, আব্দুস সালাম লয়লু, মনসুর আহমেদ প্রমুখ। বিজ্ঞপ্তি