জুড়ীতে অবৈধভাবে টিলাকাটার অভিযোগ ঝুঁকিতে ঘরবাড়ি

জুন ০৭ ২০২২, ১৬:১০

ছবি-প্রতিনিধি

জালালুর রহমান, জুড়ী (মৌলভীবাজার)
মৌলভীবাজারের জুড়ীতে উপজেলার জায়ফরনগর ইউনিয়নের কালীনগর গ্রামে অবাধে টিলা কাটার লিপ্ত অভিযোগ পাওয়া গেছে। অভিযোগের ভিত্তিতে জানা গেছে।

অপরিকল্পিতভাবে টিলা কাটার ফলে ওই গ্রামের একাধিক ঝুঁকিপূর্ণ টিলার নিচে গড়ে ওঠা বেশ কয়েকটি বাড়িঘর ভারী বর্ষণ কিংবা ভূকম্পনে টিলা ধসে মানবিক বিপর্যয়ের
আশঙ্কা রয়েছে। সরেজমিনে পরিদর্শনে গিয়ে জানা গেছে, কালীনগর গ্রামে দীর্ঘদিন ধরে একটি ভূমিখেকো চক্র অবাধে টিলা কেটে মাটি বিক্রি করেছে। মেহেরজান বিবি
অভিযোগ করে বলেন, আমার দুইটি ছেলে প্রবাসে থাকে আমার এক ছেলের বউ ও আমি বাড়ীতে থাকি আমার বাড়ীর পাশে একটি পরিত্যক্ত টিলা রয়েছে আমার, পাশের বাড়ীর প্রতিবেশি মৃতঃ রহিম খাঁর ছেলে সোলেমান মিয়া ও তার তিন ছেলে যথাক্রমে নাজির মিয়া, উজ্জ্বল মিয়া, সুবল মিয়াসহ জোর পূর্বক, আমার টিলার মাটিকেটে বিক্রি করে।

সোলেমান মিয়ার তিন সহযোগীসহ দিবারাত্রি শাবল খুন্তি কোদাল দিয়ে মাটি কাটে, মেহেরজান বিবি (৬২), ডলি বেগম (২৬), আফিয়ারুন (২৭), মুন্নি আক্তার (২৫), টিলার মাটি কাটতে আপত্তি দিতে গেলে, সোলেমান গং দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে ধাওয়া করে অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করে। প্রতিদিন এসব এলাকার বিভিন্ন টিলা থেকে প্রতি ট্রাক মাটি ১৪০০ থেকে ১৭০০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে যে কোনো সময় টিলা ধসে পড়ে ধ্বংসের সম্মুখীন হতেপাড়ে।

এ ব্যাপারে জুড়ী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সোনিয়া সুলতানা বরাবরে লিখিত আবেদন করা হয়েছে।