সিলেটে তরুণীকে ধর্ষণচেষ্টা: হামলা, অভিযোগ দায়ের

মে ১২ ২০২২, ১৬:৪৩

রাইজিং সিলেট প্রতিবেদক: সিলেট নগরীর এয়ারপোর্ট থানাধীন বাদামবাগিচায় এক তরুণীকে (১৬) ধর্ষণ চেষ্টা ও তার অন্তস্বত্তা বড় বোনের উপর হামলার ঘটনায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। বুধবার (১১ মে) এসএমপির এয়ারপোর্ট থানায় অভিযোগ দায়ের করেন ভুক্তভোগীর পিতা। তিনি বাদামবাগিচার মৃত হাজী রাজা মিয়ার কলোনীর বাসিন্দা।

অভিযোগের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন এয়ারপোর্ট থানার ওসি মো. মাইনুল জাকির।

তিনি জানান, অভিযোগ পেয়েছি, তবে অভিযোগপত্রে কিছু ত্রুটি থাকায় সংশোধন করে থানায় দাখিল করার জন্য বলা হয়েছে। তদন্তপূর্বক পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। অভিযোগসূত্রে জানা যায়, বাদামবাগিচা রাজা মিয়ার বাসার বাসিন্দা ইলাল আহমদ ও আব্দুর রহমান মামলার বাদীর দুই কন্যাকে দীর্ঘদিন থেকে ধরে উত্ত্যক্ত ও কু-প্রস্তুাব দিয়ে আসছেন। তাদের যন্ত্রণায় অতিষ্ঠ হয়ে বড় মেয়ে (১৮) কে কিছুদিন পূর্বে বিয়ে দেন।

বড় মেয়ের বিয়ের পর থেকেই ছোট মেয়ের (১৬) উপর কুদৃষ্টি পড়ে লম্পট ইলাল ও আব্দুর রহমানের। ভুক্তভোগী মেয়ের পিতা একজন রিক্সাচালক ও মা ঢালাই লেবার হওয়ায় প্রতিদিন সকালেই তাদের বাসা থেকে বের হয়ে কাজে যেতে হয়। এ সুযোগকে কাজে লাগিয়ে লম্পট ইলাল ও আব্দুর রহমান বারবার কুপ্রস্তাব দিতে থাকে।

এতে রাজি না হওয়ায় গত সোমবার (২ মে) রাত সাড়ে ১০টার দিকে বাসায় প্রবেশ করে ঘরের দরজা বন্ধ করে জোরপূর্বক ধর্ষন করার চেষ্টা করে। তখন ওই মেয়ে ধস্তাধস্তি ও চিৎকার শুরু করলে তার বড় বোন সহ আশপাশের লোকজন এগিয়ে আসেন।

তখন ভুক্তভোগীর ৪ মাসের অন্তস্বত্তা বড় বোন এগিয়ে আসলে তাকেও কিল, ঘুষি, লাথি মারে গুরুতর জখম করে ধর্ষনচেষ্টাকারীরা। আশপাশের লোকজন এগিয়ে আসলে লম্পট ইলাল ও আব্দুর রহমান পালিয়ে যায়। যাওয়ার সময় ইলাল ও আব্দুর রহমান হুমকি দিয়ে যায়- এ ঘটনায় সালিশ বিচার বা মামলা মোকদ্দমা করলে তাদের সকলকে খুন করে লাশ গুম করে ফেলবে।

 

 

 

রাইজিংসিলেট / আল-আমিন