raising sylhet
ঢাকাসোমবার , ২০ মার্চ ২০২৩
  1. অর্থনীতি
  2. আদালত
  3. আন্তর্জাতিক
  4. আরো
  5. খেলার খবর
  6. গণমাধ্যম
  7. চাকরির খবর
  8. জাতীয়
  9. দেশের খবর
  10. ধর্ম পাতা
  11. পরিবেশ
  12. প্রবাস
  13. প্রেস বিজ্ঞপ্তি
  14. বিজ্ঞান প্রযুক্তি
  15. বিনোদন
আজকের সর্বশেষ সবখবর

সিলেটে বিআরটিএ’র দুই কর্মকর্তা প্রত্যাহারের দাবিতে মানববন্ধন ও স্মারকলিপি

rising sylhet
rising sylhet
মার্চ ২০, ২০২৩ ৪:৫৩ অপরাহ্ণ
Link Copied!

সিলেট বিআরটিএ সার্কেল’র সহকারী পরিচালক (ইঞ্জিনিযয়ারিং) রিয়াজুল ইসলাম ও মোটরযান পরিদর্শক আব্দুল বারীকে প্রত্যাহারের দাবিতে মানববন্ধন করেছে সিলেট জেলা বাস মিনিবাস কোচ মাইক্রোবাস শ্রমিক ইউনিয়নের নেতৃবৃন্দ। সোমবার (২০মার্চ) সকাল ১১টায় জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

মানববন্ধনে সিলেট জেলা বাস মিনিবাস কোচ মাইক্রোবাস শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি হাজী মো. ময়নুল ইসলামের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মুহিমের পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আলী আকবর রাজন। সহ-সাধরন সম্পাদক মো.মাহবুব মিয়া মবু), সাংগঠনিক সম্পাদক আবুল হাছনাত, কোষাধ্যক্ষ আব্দস শহিদ, সদস্য সাহেদ আহমদ, সিএনজি অটোরিক্সা মালিক সমিতির সভাপতি শাহ দেলোয়ার হোসেন, শ্রমিক ইউনিয়ন রেজি নং ৭০৭ সাধারণ সম্পাদক আজাদুর রহমান।

এছাড়াও বক্তব্য রাখেন ও উপস্থিত ছিলেন ট্রাক শ্রমিক ইউনিয়ন, থ্রী হুইলার শ্রমিক ইউনিয়ন অটো টেম্পু অটোরিক্সা শ্রমিক ইউনিয়ন ও সিলেট জেলা সড়ক পরিবহন ঐক্য পরিষদের নেতৃবৃন্দ বিভিন্ন উপকমিটির নেতৃবৃন্দ।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, বিআরটিএ একটি জনসেবামূলক প্রতিষ্ঠান। কিন্তু দুঃখজনক হলেও সত্য, অবৈধভাবে টাকা উপার্জনের জন্য এই দুই কর্মকর্তা বেমালুম ভুলে গেছেন তাদের দায়িত্ব ও কর্তব্য। তারা টাকার মোহে নীতি নৈতিকথা, বিধিবিধান উপেক্ষা করে বেপরোয়া হয়ে উঠেছেন। দুর্নীতি, স্বেচ্ছাচারিতা ও সেবাগ্রহীতাদের সাথে দুব্যবহারের কারণে এই মর্যাদার প্রতিষ্ঠানটি এখন যেন কসাইখানায় পরিণত হয়েছে।

বিআরটিএ এই দুই কর্মকর্তার বিরুদ্ধে অভিযোগ করে বলেন, গত বছরের ২ অক্টোবর মেট্টো আরটিসির সভায় সিদ্ধান্ত গৃহিত হয়-‘সিলেট জেলার ঠিকানায় রেজিস্ট্রেশনকৃত সিএনজি অটোরিকশার মালিকগণ মেট্টো ঠিকানায় বদলী হতে পারবে না।’ কিন্তু এই সিদ্ধান্ত উপেক্ষা করেছেন সহকারি পরিচালক (ইঞ্জিঃ) রিয়াজুল ইসলাম। তিনি প্রতিটি সিএনজি অটোরিকশা থেকে ৫০/৬০ হাজার করে গ্রহণপূর্বক এমআরটিসির সিদ্ধান্ত ভঙ্গ করে অবৈধভাবে মালিকানা বদলী করেছেন। মালিকানা বদলীর বিষয়টি সিলেট সিএনজি অটোরিকশার মালিক ও অন্যান্য ব্যক্তি এই অনিয়ম দুর্নীতির বিষয়ে জানাজানি হওয়াতে তোলপাড় সৃষ্টি হয়।

এছাড়াও এই দুই কর্মকর্তা রেজিস্ট্রেশন, ফিটনেস, ড্রাইভিং লাইসেন্স, যানবাহনের মালিকানা বদলীসহ বিভিন্ন সেবা গ্রহণকালে নানা অজুহাতে মালিক ও পরিবহণ শ্রমিকদের হয়রানী করে থাকেন বলে অভিযোগ করেন নেতৃবৃন্দ।গত তিন মাসে আনুমানিক ১ হাজার সিএনজি অটোরিক্সার মালিকানা বদল করে টাকা পাহাড় গড়ে তুলেছে তারা। এদিকে, সোমবার সকালে মানববন্ধন পরবর্তীতে সিলেটের জেলা প্রশাসকের কাছে বিআরটিএ সহকারী পরিচালক (ইঞ্জিঃ) রিয়াজুল ইসলাম ও মোটরযান পরিদর্শক আব্দুল বারীর প্রত্যাহার জানিয়ে স্মারকলিপি দিয়েছেন।

৪২ বার পড়া হয়েছে।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।